সেনজেনভুক্ত দেশ জার্মানি তথ্যপ্রযুক্তি, যোগাযোগ ও সংস্কৃৃতিসহ বিভিন্নভাবে অত্যন্ত সমৃদ্ধ। বিশেষ করে দেশটির শিক্ষাব্যবস্থা অত্যন্ত আধুনিক ও যুগোপযোগী। তাই উচ্চশিক্ষা অর্জনে প্রতিবছর উল্লেখযোগ্য হারে বাংলাদেশ থেকে শিক্ষার্থীরা জার্মানি যায়। উন্নত শিক্ষার পাশাপাশি উন্নত জীবনের হাতছানিতে ইউরোপিয়ান এই দেশটি রয়েছে শিক্ষার্থীদের পছন্দের তালিকার প্রথম সারিতে। এখানে রয়েছে বিশ্বের অনেক নামিদামি বিশ্ববিদ্যালয়। শিক্ষা ও গবেষণা, টিউশন ফি, শিক্ষাবৃত্তির সুবিধাসহ নানা কারণে শিক্ষার্থীদের জন্য অন্যতম পছন্দের জায়গা জার্মানি। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের শিক্ষার্থীরা উচ্চশিক্ষার জন্য জার্মানি বেছে নেন। বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরাও দেশটির বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ থেকে পিছিয়ে নেই।

জার্মানিতে সাধারণত ইংরেজি ও জার্মান ভাষায় পড়তে যেতে পারবেন। ইংরেজি ভাষা দক্ষতার জন্য আপনাকে আইএলটিএস-সহ এ জাতীয় পরীক্ষার স্কোর থাকা লাগবে। আইএলটিএস টেস্টের ক্ষেত্রে ব্যাচেলরের জন্য ৫.৫ থেকে ৬.০০ স্কোর চেয়ে থাকে। মাস্টার্সের ক্ষেত্রে ৬.০০ থেকে ৬.৫ অথবা কোর্স এবং বিশ্ববিদ্যালয় ভেদে ভিন্ন হতে পারে। তবে বেশিরভাগ বিশ্ববিদ্যালয় বেশ কিছু টেস্টের স্কোর গ্রহণ করে থাকে।

জার্মানীর Student Visa এর প্রকারভেদঃ

১. Student Visa (Fix Term Language Course)
নাম থেকেই বোঝা যাচ্ছে এই ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর সুযোগ নেই। ৩-৬ মাস মেয়াদী এই ভিসা, ভাষা শিক্ষালাভের জন্য দেওয়া হয়। এ সময় Part Time/ Full Time Job এর কোন সু্যোগ নেই।

২. Student Application Visa
এই ভিসার প্রথম ও গুরুত্বপূর্ণ শর্ত হল, আপনাকে প্রথমে German Language Course করে জার্মানি ভাষায় দক্ষতা অর্জন করতে হবে এবং পরবর্তীতে জার্মান ভাষায় আপনাকে কোর্স সম্পন্ন করতে হবে। এ জন্য আপনাকে জার্মান ভাষার B2 Course (European Framework Level 2) পরীক্ষায় পাশ করতে হবে। এই ভিসায় আপনি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজী মাধ্যমে পড়তে পারবেন না এবং আপনার Part Time/ Full Time Job করার সুযোগ নেই।

৩. Student Visa (Direct Admission to University)
এটাই সেই ভিসা যেখানে আপনার ইংরেজী মাধ্যমে পড়াশুনা এবং কাজ করার সুযোগ রয়েছে। এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা সরাসরি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবেন। তাই কষ্ট হলেও আপনার এই ভিসা অর্জনের চেষ্টা করা শ্রেয়।

যেভাবে আবেদন করবেনঃ

জার্মানিতে পড়ালেখার জন্য বিভিন্নভাবে যাওয়া যায়। উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে কেউ যেতে চাইলে তাকে জার্মান ভাষা কোর্সে ভর্তি হতে হবে। খুব অল্পসংখ্যক বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্ডারগ্র্যাজুয়েট পর্যায়ে ইংলিশ ভাষায় কোর্স চালু আছে। প্রথম চেষ্টা করতে পারেন ইংলিশ ভাষায় পড়ানো হয় এমন কোনো subject-এ ভর্তি হতে। তা না পেলে দু’ভাবে ব্যাচেলর কোর্সে ভর্তি হওয়া যেতে পারে।

প্রথমত, বাংলাদেশে জার্মান ভাষার কিছু প্রাথমিক জ্ঞান নিয়ে সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য আবেদন করুন। ভর্তি হতে পারলে জার্মানি পৌঁছে মূল কোর্স শুরুর আগে ছয় থেকে এক বছরের মধ্যে জার্মান ভাষার বাকি কোর্স করে ফেলুন।

অন্যভাবেও আসা যায়, আপনি সরাসরি বাংলাদেশ থেকে জার্মানির যে কোনো ভাষা শিক্ষা কেন্দ্রে apply করুন। ভর্তি হতে পারলে ভাষা শিক্ষার জন্য ভিসা পাবেন। এখানে এসে ভাষা শিক্ষা সমাপ্ত করে বিশ্ববিদ্যালয়ে আপনার পছন্দের subject-এ ভর্তি হতে পারেন। তবে এই প্রক্রিয়া বেশ খরচ সাপেক্ষ।

মাস্টার্সে ভর্তির জন্য প্রথমে ডাড (daad.de)-এর ওয়েবসাইট থেকে কোন কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে আপনার পছন্দসই বিষয় আছে, তার তালিকা তৈরি করুন। আপনার যোগ্যতা অনুযায়ী (যেমন রেজাল্ট, TOEFL/IELTS ইত্যাদি) পুরোপুরি খাপ না খেলেও নির্দ্বিধায় আবেদন করুন।

পিএইচডির জন্য সরাসরি আবেদন করতে পারবেন। ভার্সিটির ওয়েবসাইট থেকে আপনার সাবজেক্ট সংশ্লিষ্ট ফ্যাকাল্টির ইনস্টিটিউটগুলোর তালিকা তৈরি করুন। ইনস্টিটিউট প্রফেসরকে সরাসরি মেইল করুন। জানতে চান পিএইচডির সুযোগ আছে কি না।

যেভাবে তথ্য পাবেনঃ

জার্মানির উচ্চশিক্ষা সম্পর্কে তথ্য পাবেন কীভাবে? প্রথম কথা, আপনাকে ইন্টারনেটে লেগে থাকতে হবে। নিয়মিত ইন্টারনেটে বসা, সার্চ করা ও ব্যাপক যোগাযোগ অত্যাবশ্যক। ইন্টারনেটে আপনার নেটওয়ার্কিং বাড়াতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি তথ্য, ছাত্রবৃত্তিসহ অন্যান্য তথ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ উৎসগুলোর মধ্যে জার্মান একাডেমিক একচেঞ্জ সার্ভিস DAAD ( https://www.daad.de/en/ ) গুরুত্বপূর্ণ। এখানে বিভিন্ন সাবজেক্টের তালিকা ও স্কলারশিপের তথ্য পাবেন। স্কলারশিপের জন্য জার্মান সায়েন্স ফাউন্ডেশন DFG ( http://dfg.de/en ) জার্মান শিক্ষা ও গবেষণা মন্ত্রণালয় BMBF( http://www.bmbf.de/ ) উল্লেখযোগ্য। এসব সংস্থার ওয়েবসাইটের সংশ্লিষ্ট ইংরেজি সংস্করণে আপনাকে অনেক খোঁজ করতে হবে। তাছাড়া বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে আবেদনের সব প্রক্রিয়া ও বৃত্তি সর্ম্পকে জানা যায়।

বাংলাদেশি স্টুডেন্ট অ্যান্ড অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন ইন জার্মানির ওয়েবসাইট (bsaagweb.de) থেকেও শিক্ষার্থীরা জার্মানিতে বর্তমানে পড়ছেন এমন শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে সরাসরি পরামর্শ নিতে পারেন। জার্মানির শিক্ষাব্যবস্থা, দৈনন্দিন জীবনযাপন, পড়ালেখা-চাকরির সুবিধাসহ যাবতীয় তথ্য পাওয়া যাচ্ছে এ সাইট থেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 × three =